আমার শুধু যখন তখন হাসি পায়, এটি কি কোনো মানসিক সমস্যা?

আমার শুধু যখন তখন হাসি পায়, এটি কি কোনো মানসিক সমস্যা?

Add Comment
1 Answer(s)

যখন তখন হাসি পাওয়া কোনো মানসিক সমস্যা না। হাসি মানুষের একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়ার আবেগ। যেকোনো বিষয়ে একজনের হাসি পেতেই পারে। কখনও কখনও এটি অনিয়ন্ত্রিত পর্যায়ে চলে যেতে পারে। তাতে করে কোনো সমস্যা নেই। বরং হাসি আমাদের শরীরের জন্য অনেক ভালো। এতে করে আমাদের স্বাস্থ্য ভালো থাকে। এক্ষেত্রে হাসির কিছু উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নিতে পারেন।

– বেশি হাসি আপনার হার্টের জন্য খুব ভালো। গবেষণায় পাওয়া যায় যে সকল মানুষেরা বেশি হাসে তাদের হার্টের সমস্যা তুলনামূলক ভাবে খুব কম এবং যারা কম হাসেন তাদের হার্টের সমস্যা হয়ে থাকে। তাছাড়া যে সকল মানুষের বেশি হাসতে পারেন না তারা তাদের ব্যক্তিগত জীবনেও নানা রকমের সমস্যায় থাকেন। তাই সুস্থ হার্টের জন্য মন-প্রাণ খুলে হাসুন।

– হাসি আপানর দেহকে ক্যান্সার রোগ থেকে বাঁচাতে সাহায্য করবে। আমেরিকার ক্যান্সার ট্রিটমেন্ট সেন্টারে ক্যান্সার রোগীদের হাসানোর জন্য বিশেষ থেরাপি দেয়া হয়ে থাকে। যা একজন ক্যানসার রোগীর দেহের ব্যথা দূর করে ও মন ভালো রাখে।

– হাসি সম্পর্কের ত্রুটি দূর করে। হাসি মানুষকে একে অপরকে কাছাকাছি রাখতে সাহায্য করে থাকে। যে কোন ধরণের রাগ দূর করতে সুন্দর একটি হাসির উপকারিতা অনেক বেশি। হাসি আপনার মনের সমস্ত দুশ্চিন্তা দূর করবে ও আপনাদের সম্পর্ক ভালো রাখতে সাহায্য করবে।

– আপনার কাজ যেমনই হয়ে থাকুক না কেন সেই কাজটিকে আনন্দের সাথে করার চেষ্টা করুন। কর্মক্ষেত্রে দুর্দান্ত উপায়ে, দলবদ্ধ ভাবে ও মানসিক ভাবে শক্তি নিয়ে কাজ করতে হাসি খুশি থাকা খুবই জরুরী।

– হাসি আপনার মানসিক চাপ দূর করে থাকে। কিন্তু এই বিষয়টি হয়তো আমরা বুঝিনা কারণ যখন একটি মানুষ মানসিক ভাবে চাপের উপর থাকে স্বভাবগত ভাবেই তার মন খারাপ থাকবে এটাই স্বাভাবিক। তাছাড়া দৈনন্দিন যুগে মানসিক চাপ একটি রোগে পরিনত হয়েছে। তাই যখনই যেমন অবস্থায় থাকুন না কেন মন ভালো রাখতে ও মানসিক চাপ দূরে রাখতে হাসুন।

– অট্ট হাসি আপানর দেহের যেকোন ব্যথা নিমিষেই দূর করতে সাহায্য করবে। অট্ট হাসি আমাদের মস্তিষ্কের এনডোরফিন (হরমোন) নামের একটি কেমিক্যাল নিঃসরণ করে থাকে যা আমাদের দেহের ব্যথা দূর করে থাকে। অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির একটি জরিপে দেখা গিয়েছে যে মানুষ যত বেশি হাসবে তার দেহের ব্যথা তত বেশি কমে যাবে।

– অনেক কারণেই আমরা বিষণ্ণতায় ভুগে থাকি। তাই হাসি আপনাকে সবসময় প্রফুল্ল রাখবে ও আপনার মনের গভীর থেকে বিষণ্ণতা দূর করবে। গবেষণায় দেখা যায় যারা বেশি হাস্তে থাকেন তাদের ভেতর অনেক কম দুশ্চিন্তা ভর করে। এবং বিষণ্ণতার প্রভাব থাকে না।

– হাসি আপনার দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। আপনি যখন হাসেন তখন আপনার দেহের রক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায় এবং অক্সিজেন গ্রহণের মাধ্যমে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়ে যায়।

– হাসি আপনাকে ভালো করে ঘুমাতে সাহায্য করে থাকে। জাপানে একটি গবেষণায় প্রকাশিত হয়েছে যে সন্ধ্যায় আপনি যত বেশি হাসবেন রাতে আপনার ঘুম তত বেশি ভালো হবে। তাই ভালো ঘুমের জন্য রাতে ঘুমানোর আগে কোন মজার গল্পের বই পড়ুন কিংবা কোন মজার সিনেমা দেখুন যা আপনাকে অনেক বেশি হাসতে সাহয়তা করবে।

তবে হ্যাঁ মাত্রাতিরিক্ত হাসি আপনার ব্যক্তিত্বকে নষ্ট করে দিতে পারে। সবার চোখে তা দৃষ্টিকটু দেখাতে পারে। তাই সহনীয় পর্যায়ে হাসুন এবং সুস্থ থাকুন।

Professor Answered on June 8, 2015.
Add Comment

Your Answer

By posting your answer, you agree to the privacy policy and terms of service.

  • RELATED QUESTIONS

  • POPULAR QUESTIONS

  • LATEST QUESTIONS